রাত ১:০৭ । ৮ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ । ২১শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ । ৯ই রমজান, ১৪৪২ হিজরি


জরুরী নোটিশ/বিজ্ঞপ্তিঃ
* সর্বশেষ খবর সবার আগে পেতে ভিজিট করুন www.nilakashbarta.com – নীলাকাশ বার্তা ডট কম। ধন্যবাদ। জরুরী ভিত্তিতে বাংলাদেশের জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোটাল www.nilakashbarta.com – নীলাকাশ বার্তা ডট কম পত্রিকায় জেলা/উপজেলা ভিত্তিক প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে, আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন। অফিস : সুন্দরবন টাওয়ার (২য় তলা), নূরনগর বাজার, নূরনগর-৯৪৫১, শ্যামনগর, সাতক্ষীরা, ঢাকা, বাংলাদেশ। মোবাঃ +৮৮০১৮৮৫-১৭৫৬৮০, +৮৮০১৯৫৬-৬৯৫৯৮১, ই-মেইল : nilakashbarta@gmail.com, nuruzzamannews@gmail.com, ফেসবুক : www.facebook.com/nilakashbarta * To get the latest news, visit www.nilakashbarta.com first. Thanks. District/Upazila based representatives will be appointed in the popular online news portal www.nilakashbarta.com of Bangladesh on an urgent basis. Those interested should contact. Office: Sundarbans Tower (2nd Floor), Nurnagar Bazar, Nurnagar-9451, Shyamnagar, Satkhira, Dhaka, Bangladesh. Mob: +8801885-175680, + 801958-695971, E-mail: nilakashbarta@gmail.com, nuruzzamannews@gmail.com, Facebook: www.facebook.com/nilakashbarta
শিরোনাম

গতি বাড়াতে সাগরের গভীর দিয়ে কেবল নিচ্ছে ফেসবুক ও গুগল কোম্পানি

Spread the love

নীলাকাশ বার্তাঃ “সিঙ্গাপুর, ইন্দোনেশিয়া ও উত্তর আমেরিকায় সাগরের নিচ দিয়ে কেবল সংযোগ করবে বলে খবর পাওয়া গেছে। তাদের সহায়তা করবে গুগল ও স্থানীয় টেলিকমিউনিকেশন সংস্থাগুলো।

এতে করে ওই অঞ্চলে ইন্টারনেট সংযোগ আরও শক্তিশালী হবে। “ইকো ও বাইফ্রস্ট নামে কেবল দুটি জাভা সাগর দিয়ে যাবে বলে জানা যাচ্ছে। ফেসবুক ভাইস প্রেসিডেন্ট কেভিন সালভেদরি রয়টার্সকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

কর্মকর্তারা বলছেন, কেবল গুলো উত্তর আমেরিকা ও ইন্দোনেশিয়াকে যুক্ত করে।” “সালভেদরি বলেন, ইকো তৈরি করছে গুগল ও ইন্দোনেশীয় টেলিকম প্রতিষ্ঠান আজিয়াটা। ২০২৩ সালে এই কাজ শেষ হবে।”

“আর বাইফ্রস্ট তৈরি করেছে টেলিন ও কেপেল। ২০২৪ সালে কাজ শেষ হবে এই কেবলের । িইন্দোনেশিয়ার ২৭ কোটি জনসংখ্যার ৭৩ শতাংশ ইন্টারনেট ব্যবহার করে। তাদের বেশিরভাগ মোবাইলে। মাত্র ১০ শতাংশ ব্রডব্যান্ড ব্যবহার করে। ফলে সেখানে মোবাইল ইন্টারনেট খুবই গুরুত্বপূর্ণ

ফেসবুক জানায়, তারা ইন্দোনেশিয়ায় ২০ টি শহরে ৩ হাজার কিলোমিটার ফাইবার ব্যবহার করবে।”

সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস

আরও পড়ুন

হেফাজতে ইসলামের কর্মসূচি ও সংঘর্ষ নিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বললেন,,

নীলাকাশ বার্তাঃ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বাংলাদেশ সফরের বিরোধিতা করে বাংলাদেশে তিনদিন ধরে ‘কতিপয় গোষ্ঠী ধর্মীয় উন্মাদনা ছড়িয়ে সরকারি সম্পত্তি ও মানুষের জানমালের ক্ষতি করছে’ এবং তা এখনি বন্ধের তিনি আহ্বান জানিয়েছেন।”

অন্যথায়, সরকার কঠোর অবস্থান গ্রহণ করবে বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন তিনি।”

“রোববার সচিবালয়ে এসব কথা বললেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান।”

“নরেন্দ্র মোদীর বাংলাদেশ সফরের বিরোধিতা করে রোববার টানা তৃতীয় দিনের মত ব্রাহ্মণবাড়িয়াতে সংঘর্ষ হয়েছে।”

 

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, গত তিনদিন ধরে কতিপয় উচ্ছৃঙ্খল ব্যক্তি, গোষ্ঠী ধর্মীয় উন্মাদনায় চট্টগ্রাম জেলার হাটহাজারী উপজেলা, ব্রাক্ষণবাড়িয়া সদর, সরাইল আশুগঞ্জ উপজেলায় সরকারি সম্পত্তি ধ্বংস করে চলেছে।”

“যার মধ্যে উপজেলা পরিষদ, থানা ভবন, সরকারি ভূমি অফিস, পুলিশ ফাঁড়ি, রেল স্টেশন রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গের বাড়িঘর, প্রেসক্লাবসহ মানব সম্পদের তারা ক্ষয়ক্ষতি করে যাচ্ছেন।

 

 

তিনি বলেন, ‘এ জাতীয় ক্ষয়ক্ষতি, সকল প্রকার উচ্ছৃঙ্খলতা বন্ধ করার জন্য সংশ্লিষ্ট সবাইকে আমরা আহ্বান জানাচ্ছি। অন্যথায় জনগণের জানমাল সম্পদ রক্ষার্থে সরকার কঠোর অবস্থান গ্রহণ করবে।

নরেন্দ্র মোদীর সফরের বিরোধিতা করে ধারাবাহিক বিক্ষোভের পর আজ রোববার বাংলাদেশে হরতাল পালন করেছে হেফাজতে ইসলাম।

হরতালে নানা জায়গায় অবরোধ ও সংঘাতের ঘটনা ঘটলেও ব্রাহ্মণবাড়িয়াতেই সহিংসতার ঘটনা ঘটছে সবচেয়ে বেশি।

শুক্রবার জুমার নামাজের পর বিক্ষোভ করে হেফাজতে ইসলামের সমর্থকরা

 

তিনি আরো বলেছেন, সামাজিক মাধ্যমে গুজব ছড়িয়ে, ভুয়া নিউজ ছড়িয়ে উত্তেজনা বৃদ্ধি করা হচ্ছে।

“আমরা মনে করি এইগুলো নাশকতা, এইগুলা রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে অবস্থান নেওয়া। আমরা আহ্বান জানাচ্ছি এগুলি থেকে বিরত থাকার জন্য, নতুবা আমরা আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নিতে যাচ্ছি।

যারা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন, তারা যাতে আরো ক্ষতিগ্রস্ত না হন সেজন্য সরকার সব ব্যবস্থা নেবে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, তিনদিন ধরে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী চরম ধৈর্যের পরিচয় দিয়েছে। এখন তাদের প্রতিহত করা হবে আইনের আওতায় নিয়ে আসবো।

 

আরও পড়ুন

সাতক্ষীরার সিমান্ত নদী থেকে অজ্ঞাত যুবকের অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার

নীলাকাশ বার্তাঃ” সাতক্ষীরার ভারত বাংলাদেশ সীমান্ত নদী ইছামতি থেকে অজ্ঞাত পরিচয় এক যুবকের অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

রোববার (২৮ মার্চ) বেলা ১১টার দিকে সাতক্ষীরা সদও উপজেলার হাড়দ্দহ সীমান্তের ১নং মেইল পিলারের দক্ষিণে ইছামতি নদীর ভাঙা নামক স্থান থেকে এই মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

স্থানীয় ভোমরা ইউপি সদস্য আব্দুল গণি জানিয়েছেন, রোববার সকালে নদীতে মাছ ধরতে যেয়ে কয়েকজন জেলে একটি মরদেহ ভাসতে দেখে তাকে খবর দেয়। বিষয়টি তিনি সদর থানাকে জানালে পুলিশ ১১টার দিকে মরদেহটি উদ্ধার করে।”

সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ আসাদুজ্জামান বলেছেন, “মৃতের গলায় একটি রুমাল পেঁচানো ছিল। তার ডান হাতে একটি বালা ও বাম হাতে একটি ঘড়ি রয়েছে। গায়ে সাদা রঙ এর গেঞ্জি ও জিনস এর প্যান্ট পরা ছিল।” আনুমানিক ৩৫ বছর বয়সের ওই যুবককে কয়েক দিন আগেই শ্বাসরোধ করে হত্যার পর লাশ নদীতে ভাসিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ওই যুবক ভারতীয় নাগরিক বলে প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

মরদেহটি ময়না তদন্তের জন্য সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়ুন

হেফাজতের হরতালে ফের রণক্ষেত্র ব্রাহ্মণবাড়িয়া নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১০

নীলাকাশ বার্তাঃ “ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হেফাজতে ইসলামের ডাকা হরতালকে কেন্দ্র করে রণক্ষেত্রে পরিণত হয়েছে। রোববার সকাল থেকেই হরতাল সমর্থকরা বিভিন্ন সড়ক মহাসড়কে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ দেখায়।

এ ঘটনায় বিক্ষোভকারীরা বিভিন্ন সরকারি দপ্তরসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে হামলা ও ভাঙচুর করে অগ্নিসংযোগ করেন।

এ সময় শহরের পৈরতলা, পুলিশ লাইন্স এলাকা, কুমিল্লা- সিলেট মহাসড়ক, বিশ্বরোড এলাকাসহ বিভিন্ন স্থানে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের সংঘর্ষে নতুন করে দুই জন নিহত হয়”।

রবিবারে দুই জন নিহত হয়েছে।
তারা হলেন- সরাইলের আলামিন ও অজ্ঞাত একজন। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত ১০ জন নিহত হয়েছেন। তবে হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়বে বলে বিভিন্ন সূত্রে জানা যাচ্ছে।

এছাড়া বিক্ষুব্ধরা ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভা, শিল্পকলা একাডেমি, জেলা পরিষদ, মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স, ভূমি অফিস, আলাউদ্দিন সঙ্গীতাঙ্গন, জেলা আওয়ামী লীগের অফিস, ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাব, আনন্দময়ী কালিবাড়ি মন্দির, আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদকের বাড়ি, শহীদ ধীরেন্দ্র নাথ দত্ত ভাষা চত্বর, উন্নয়ন মেলাসহ বিভিন্ন সরকারি ও সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠানে ব্যাপক হামলা ও ভাঙচুর চালিয়ে অগ্নিসংযোগ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *