সকাল ৮:১৬ । ২২শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ । ৭ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ । ২৩শে রজব, ১৪৪২ হিজরি


জরুরী নোটিশ/বিজ্ঞপ্তিঃ
* সর্বশেষ খবর সবার আগে পেতে ভিজিট করুন নীলাকাশ বার্তা ডট কম। ধন্যবাদ। জরুরী ভিত্তিতে বাংলাদেশের জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোটাল নীলাকাশ বার্তা ডট কম পত্রিকায় জেলা/উপজেলা ভিত্তিক প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে, আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন। অফিস : সুন্দরবন টাওয়ার (২য় তলা), নূরনগর বাজার, নূরনগর-৯৪৫১, শ্যামনগর, সাতক্ষীরা, ঢাকা, বাংলাদেশ। মোবাঃ +৮৮০১৮৮৫-১৭৫৬৮০, +৮৮০১৯৫৬-৬৯৫৯৮১, ই-মেইল : nilakashbarta@gmail.com, nuruzzamannews@gmail.com, ফেসবুক : https://www.facebook.com/nilakashbarta
শিরোনাম
“ট্রেনের নিচে প্রেমিক যুগলের ঝাঁপ, জীবন গেল প্রেমিকের” “চলতি সপ্তাহের ভাইরাল সংবাদ “ফেঁসে যাচ্ছেন নাসিরের স্ত্রী তামিমা!” “বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণ বাংলাদেশের স্বাধীনতার মূল প্রেরণা”- কবির নেওয়াজ দেশের বিভিন্ন এলাকায় বজ্র বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে “সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের নির্বাচন সম্পন্ন বাপ্পী সভাপতি, সুজন সম্পাদক” “৪ যুবকের সঙ্গে কিশোরীর ‘প্রেম’, পরে লটারিতে মীমাংসা!” “শ্বশুরবাড়ি যাওয়ার আগে কাঁদতে কাঁদতে নববধূর মৃত্যু” গাড়িবোমা হামলা চালিয়ে ২০ জনকে হত্যা” “মিয়ানমারে চরম বিপাকে সেনাবাহিনী, রাস্তায় রাস্তায় ঝুলছে নারীদের লুঙ্গি!” “জোটের রাজনীতি- ঘরের আগুনে পুড়ছে ১৪ দল”

সড়ক দুর্ঘটনায় অভিনেত্রী আশা চৌধুরী নিহত

নীলাকাশ বার্তাঃ “অভিনেত্রী আশা চৌধুরীর সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হওয়ার ঘটনায় দারুস সালাম থানায় মামলা হয়েছে।” “মামলায় আশাকে বহনকারী মোটর বাইকের চালক শামীম আহমেদসহ অজ্ঞাতনামা কয়েক জনকে আসামি করা হয়েছে।

“আশার ফেরার পথে আড়াই ঘণ্টার হিসাব না মেলায় শামীমকে প্রধান অভিযুক্ত করে গতকাল রাত ১০টার পরে মামলাটি করেছে তাঁর পরিবার।”

“শুরুতে গাজীপুরের বোর্ড বাজার থেকে ফেরার কথা বলা হলেও আশার পরিবার থেকে নিশ্চিত করা হয়েছে বনানী এলাকা থেকে রওনা হয়েছিলেন আশা।” ৪ জানুয়ারি রাত ১১টার দিকে আশা তাঁর মাকে ফোন দিয়ে জানান, তিনি বনানীতে আছেন। ২০ মিনিটের মধ্যে তিনি বাসায় ফিরবেন।” আশার মা-বাবা ধরে নিয়েছিলেন মেয়ে বাসায় ফিরতে বড়জোর সাড়ে ১১টা বাজতে পারে।”

 

আশার বাবা আবু কালাম বলেন, “তাঁর মেয়ে ফোন দেওয়ার ৫ মিনিট পরে তিনি আবারও আশাকে ফোন দেন। সেই সময় মেয়ের সঙ্গে তাঁদের নতুন বাসার কাজের ব্যাপারে সর্বশেষ কথা হয়।”

“বনানী থেকে তাঁদের ফেরার কথা ছিল কালশী রোড হয়ে আশাদের মিরপুর রূপনগর আবাসিক এলাকার বাসায়।”

“মেয়ে বাসায় আসছে ভেবে পরে আর তাঁরা রাতে ফোন দেননি। রাত প্রায় দুইটার দিকে আশাকে বহন করা মোটরবাইকের চালক শামীম আহমেদ অভিনেত্রী আশার মাকে ফোন দিয়ে বলেন, ‘আন্টি, একটু টেকনিক্যাল মোড়ে আসেন।’ শামীম ফোন কেটে দিয়ে কিছুক্ষণ পরে আবার ফোন দিয়ে বলেন, ‘আন্টি আশা আর নেই, মারা গেছে।’ এই তথ্য জানানোর সময় কথা বলতে বলতেই আশার বাবা আবু কালাম কেঁদে ফেলেন। তিনি ফোনটি ধরিয়ে দেন তাঁর শ্যালক মোঃ দুলাল হোসেনকে।”

“মামলাটি করার সময় আশার মামা দুলাল সঙ্গে ছিলেন। তিনি জানান, মোটর বাইকের চালক শামীম আহমেদ পুলিশের সামনে তিন রকম কথা বলেছেন।”

“তাঁদের ফেরার কথা ছিল কালশী রোড হয়ে কিন্তু টেকনিক্যাল মোড়ে তিনি কীভাবে গেলেন?”

“তাঁরা শামীমকে এই প্রশ্ন করলে তখন শামীম জানিয়েছেন ,”তিনি পথ ভুলে গিয়েছিলেন। দুলাল জানান, তাঁর ভাগনি আশার ঢাকার প্রায় সব রাস্তাই চেনা।” “তাহলে কীভাবে পথ ভুল হলো? তা ছাড়া এই বাইকচালক পুলিশের সামনে বলেছেন, রোড পার হতে গিয়ে আশা দুর্ঘটনায় মারা গেছে। “কিন্তু সিসি ক্যামেরার ফুটেজে দেখা যায়, মোটরবাইকে থাকা অবস্থায় ট্রাকের ধাক্কায় আশা রাস্তায় পড়ে যান।” তাঁর মাথার ওপর দিয়ে ট্রাকের চাকা চলে যায়।” দুলাল বলেন, “আমাদের সন্দেহ শামীমই নেশা জাতীয় কিছু খাইয়েছিল আশাকে। কারণ, আশা সুস্থ থাকলে শামীমকে ধরে বসত। আশার রাস্তায় ছিটকে যাওয়ার পর সে আশাকে একবারও ধরে নাই। শামীম আড়াই ঘণ্টা কীভাবে রাস্তায় ঘুরেছে, তার সঠিক উত্তর দিতে পারে নাই। সন্দেহ হওয়ায় তাকে প্রধান আসামি ও অজ্ঞাত ট্রাকচালকের নামে মামলাটি করেছি।’

গতকাল রাত ৮টার দিকে অভিনেত্রী আশাকে দাফন করা হয়েছে। পরে রাতেই তাঁর পরিবার সিদ্ধান্ত নেয় মামলাটি করার। রাত ১০টা ২০ মিনিটে দারুস সালাম থানায় এসে মামলাটি করেন আশার পরিবারের সদস্যরা।

মামলার বিষয়ে দারুস সালাম জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার মিজানুর রহমান বলেছেন, গতকাল রাতেই আশার বাবা আবু কালাম বাদী হয়ে মামলাটি করেছেন।” মামলায় বাইকের চালক মোঃ শামীম আহমেদকে অভিযুক্ত করা হয়েছে। তিনি বলেন, ‘অভিযুক্ত শামীম আহমেদ অভিনেত্রী আশা চৌধুরীর পরিবারের ৬ থেকে ৭ বছরের পরিচিত। তাঁকে সন্দেহ হওয়ায় অভিনেত্রীর পরিবার শামীমকেসহ সড়ক আইনের ১০৫ ধারায় অজ্ঞাত আরও চার জনকে আসামি করেছে”।

আমরা মূল ঘটনা উদঘাটন করে অপরাধীদের খুঁজে বের করার চেষ্টা করছি।

আরও পড়ুন

ফেসবুকে তরুণীর আত্মহত্যার স্ট্যাটাস, বাসায় হাজির পুলিশ”

নীলাকাশ বার্তাঃ “ফেসবুকে তরুণীর আত্মহত্যার স্ট্যাটাস, বাসায় হাজির পুলিশ
আত্মহত্যা করতে চান—ফেসবুকে এমন স্ট্যাটাস দিয়েছিলেন ঢাকার রূপনগরের এক তরুণী। এই স্ট্যাটাস দেখে তাঁরই এক সাবেক সহকর্মী ফোন করেন বাংলাদেশ পুলিশ পরিচালিত ‘জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ এ। আর ফোন পেয়েই ওই তরুণীকে উদ্ধার করতে তাঁর বাসায় ছুটে যায় রূপনগর থানা পুলিশ। পুলিশ তরুণীকে বুঝিয়ে তাঁরই এক বান্ধবীর বাসায় রেখে আসে এবং কথা বলে মেয়েটির স্বামীর সঙ্গেও।”

“পুলিশের পরিদর্শক ও জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ এর ফোকালপারসন আবদুস সাত্তার সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব কথা জানিয়েছেন।”

“ঘটনাটি মঙ্গলবার রাত সাড়ে নয়টার দিকের। ওই সময় জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ এ একজন ব্যক্তি ঢাকার যাত্রাবাড়ী থেকে ফোন করে জানান, তিনি একজন সাংবাদিক, একটি ইলেকট্রনিক মিডিয়াতে কাজ করেন। তাঁর সাবেক সহকর্মী এক তরুণী, যিনি একই টিভি চ্যানেলে সংবাদকর্মীর কাজ করতেন, তিনি ফেসবুকে একাধিক স্ট্যাটাস দিয়েছেন, তিনি আত্মহত্যা করতে যাচ্ছেন, বন্ধুদের তিনি বিদায় জানিয়েছেন এবং তাঁর লাশ নেওয়ার জন্য মিরপুরের রূপনগর যাওয়ার জন্যও বলেছেন। ওই ব্যক্তি জানান, তাঁর সাবেক সহকর্মী বর্তমানে রূপনগর আবাসিক এলাকায় তাঁর স্বামীর বাসায় আছেন।

তিনি ৯৯৯ কে তাঁর সহকর্মীকে উদ্ধারে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য অনুরোধ জানান।

“৯৯৯ থেকে তাৎক্ষণিকভাবে কলারের সঙ্গে রূপনগর থানার দায়িত্বরত পুলিশ কর্মকর্তার কথা বলিয়ে দেওয়া হয়। সংবাদ পেয়ে রূপনগর থানা পুলিশের একটি দল দ্রুত ঘটনাস্থলে যায়।”

“পরে রূপনগর থানার এসআই এনামুল ৯৯৯ কে ফোনে জানান, তিনি ঘটনাস্থলে আছেন, তরুণী তাঁর জিম্মায় আছেন, তিনি তাঁকে বোঝানোর চেষ্টা করছেন। এরপর ৯৯৯ থেকে তরুণীর সঙ্গে ফোনে কথা বলা হলে কান্নায় ভেঙে পড়ে তরুণী জানান, তিনি বিকেলে ঝিনাইদহ থেকে রূপনগরে তাঁর স্বামীর বাসায় এসে পৌঁছান। কিন্তু বাসায় ঢুকতে গিয়ে দেখেন, তাঁর স্বামী, যিনি একজন মেরিন ইঞ্জিনিয়ার, বর্তমানে ঢাকার বাইরে আছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *