রাত ২:৫০ । ৮ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ । ২১শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ । ৯ই রমজান, ১৪৪২ হিজরি


জরুরী নোটিশ/বিজ্ঞপ্তিঃ
* সর্বশেষ খবর সবার আগে পেতে ভিজিট করুন www.nilakashbarta.com – নীলাকাশ বার্তা ডট কম। ধন্যবাদ। জরুরী ভিত্তিতে বাংলাদেশের জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোটাল www.nilakashbarta.com – নীলাকাশ বার্তা ডট কম পত্রিকায় জেলা/উপজেলা ভিত্তিক প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে, আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন। অফিস : সুন্দরবন টাওয়ার (২য় তলা), নূরনগর বাজার, নূরনগর-৯৪৫১, শ্যামনগর, সাতক্ষীরা, ঢাকা, বাংলাদেশ। মোবাঃ +৮৮০১৮৮৫-১৭৫৬৮০, +৮৮০১৯৫৬-৬৯৫৯৮১, ই-মেইল : nilakashbarta@gmail.com, nuruzzamannews@gmail.com, ফেসবুক : www.facebook.com/nilakashbarta * To get the latest news, visit www.nilakashbarta.com first. Thanks. District/Upazila based representatives will be appointed in the popular online news portal www.nilakashbarta.com of Bangladesh on an urgent basis. Those interested should contact. Office: Sundarbans Tower (2nd Floor), Nurnagar Bazar, Nurnagar-9451, Shyamnagar, Satkhira, Dhaka, Bangladesh. Mob: +8801885-175680, + 801958-695971, E-mail: nilakashbarta@gmail.com, nuruzzamannews@gmail.com, Facebook: www.facebook.com/nilakashbarta
শিরোনাম

দীঘির বিরুদ্ধে যে কারণে কোটি টাকার মামলা করবেন পরিচালক!

Spread the love

নীলাকাশ বার্তা- মনোয়ার হোসেন ডিপজলের সিনেমার একটি দৃশ্য ‘বাবা জানো, আমাদের একটা ময়না পাখি আছে না, সে আজকে আমার নাম ধরে ডেকেছে’ বলা সেই শিশুশিল্পী দীঘি এবার চিত্রনায়িকা হয়ে রূপালি পর্দায় আসছেন বলে জানা যাচ্ছে।”

দীঘির প্রথম সিনেমা মুক্তি পেতে যাচ্ছে ‘তুমি আছো তুমি নেই’।

দেলোয়ার জাহান ঝন্টু পরিচালিত এই ছবিটি ১২ মার্চ মুক্তি পাবে।

মুক্তির আগেই ছবিটির নায়িকা দীঘির কয়েকটি মন্তব্যে বেশ চটেছেন পরিচালন দেলোয়ার জাহান ঝন্টু।

যেকোনো মুহূর্তে দীঘি ও তার মামার বিরুদ্ধে এক কোটি টাকা মানহানির মামলা ঠুকে দেবেন বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন এই বর্ষীয়ান পরিচালক।

দীঘির ওপর ক্ষুব্ধ পরিচালক জানালেন ‘আজকালের মধ্যে হাইকোর্ট থেকে ওর (দীঘি) কাছে উকিল নোটিশ চলে যাবে। আমি ওকে ছাড়ব না।’

“সম্প্রতি দীঘির প্রথম ছবির ট্রেলার মুক্তি পায়, যা দেখে নেটিজেনরা সমালোচনায় মাতেন। “অনেকেই ব্যাঙ্গ করে এই ট্রেলার দেখার জন্য খরচ হওয়া ইন্টারনেট বিল ফেরত চান।”

নেটজুড়ে এমন সব সমালোচনায় বিব্রত হয়ে দীঘি মন্তব্য করেন, ‘ছবিটি মানহীন। এটি চলবে না। দর্শকপ্রিয়তা পাবে না।’”

” মুক্তি পাওয়ার আগে সিনেমার নায়িকার মুখেই এমন মন্তব্য এর ব্যবসায় নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে বলে মনে করছেন পরিচালক ঝন্টু।”

তিনি বললেন, এতে আর্থিক ক্ষতি হলে দীঘি এক কোটি টাকার মানহানি মামলার মুখে পড়বেন। ।

“গত ৮ মার্চ একটি ইউটিউব চ্যানেলে ঝন্টু ক্ষোভ ঝাড়েন, “নায়িকা হয়েও দীঘি ‘তুমি আছো তুমি নেই’ সিনেমার সমালোচনা করেছে। এটা ঠিক হয়নি। সে নায়িকা। তার কথায় দর্শক বিমুখ হবে। এতে সিনেমাটি চলবে না।”

” দীঘির জন্য ১ কোটি টাকা ক্ষতি হবে আমার। প্রযোজক কী করবে জানি না। কিন্তু আমি ওকে ছাড়ব না”। এটা পরিচালকের মানহানির বিষয়।”

দীঘি যখন বলেছে, ‘সিনেমাটি চলবে না’। তখন পরিচালক হিসেবে আমারও মানহানি হয়েছে”। আমি মানহানি মামলা করব দীঘি ও তার মামার নামে।

“শুটিং, ডাবিংয়ের সময় সিনেমার সংলাপ ও ঘটনা নিয়ে প্রশংসা করেছে দীঘি। “কিন্তু এখন কেন সে সমালোচনা করছে? ডেফিনেটলি দেয়ার ইজ সামথিং রং। কেউ ওকে দিয়ে এসব বলাচ্ছে বলে আমি মনে করছি।

এক সময় উত্তেজিত কণ্ঠে এ নির্মাতা বলেন, ‘আমি দেলোয়ার জাহান ঝন্টু। বাংলাদেশে আরেকটি নেই। উপমহাদেশে আমার মতো একজন চলচ্চিত্রকার নেই। “আমি দুই কোটি টাকা নিয়ে সিনেমা বানিয়েছি, ২০ লাখ দিয়েও বানিয়েছি। ‘চলচ্চিত্র মেধা দিয়ে তৈরি হয়, টাকা দিয়ে নয়’।

” ট্রেলার দেখে তো সত্যজিৎ রায়ও মন্তব্য করতে পারবেন না যে, ছবি চলবে কি চলবে না।”

” আর অতটুকুন বাচ্চা মেয়ে বলে ফেলল। ওর মামা কী করে বলে, এই সিনেমা চলবে না। তিনি কী চলচ্চিত্রের লোক?”

এমন সব বক্তব্যের বিষয়ে দীঘির প্রতিক্রিয়া জানতে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।

আরও পড়ুন

শ্যামনগরে আলোচিত বক্কার চোর আটক

নীলাকাশ বার্তাঃ

সাতক্ষীরা শ্যামনগরে আন্তঃজেলা মোটর সাইকেল চোর চক্রের মূল হোতা আবু বক্কার সিদ্দিক ওরফে বক্কারকে শ্যামনগর থানা পুলিশ গ্রেফতার করেছে। বক্কার ওরফে চোর বক্কার নামে পরিচিত সে।

খোঁজ খবর নিয়ে জানা যায়, বক্কারের বিরুদ্ধে খুলনা বিভাগের বিভিন্ন জেলায় বিভিন্ন থানায় ১৩টি মামলা রয়েছে। যার মধ্যে একটিতে ২ বছর ৬ মাস কারাদণ্ড এবং অন্যটিতে দুই বছর কারাদণ্ড।

শ্যামনগর উপজেলার চিংড়িখালি গ্রামের চিহ্নিত বক্কার চোর আটক হওয়ার খবর পেয়ে সকলের মাঝে স্বস্তি ফিরে এসেছে। শ্যামনগরে ক্রসফায়ারে নিহত রেজাউল মাঝির সেকেন্ড ইন কমান্ড হিসেবে পরিচিত ছিল। রেজাউল মাঝি ক্রসফায়ারে নিহত হওয়ার পর বক্কার চোর শ্যামনগর ছেড়ে আত্মগোপন করে।

এই বিষয়ে শ্যামনগর থানার ওসি তদন্ত ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

আরও পড়ুন

“এসআই স্বামীর কোটিপতি স্ত্রী গ্রেফতার”

নীলাকাশ বার্তাঃ রাজধানীর সিআইডির এসআই পদে কর্মরত স্বামী নওয়াব আলীর আয়ের উৎস থেকে স্ত্রী গোলজার বেগম (৪৮) কোটিপতি হয়েছেন বলে দুদকের মামলার তদন্তে উঠে এসেছে”। মঙ্গলবার উক্ত মামলায় চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ শেখ আশফাকুর রহমানের আদালতে আত্মসমর্পণ করেন গোলজার বেগম।

“এ সময় শুনানি শেষে বিচারক জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন বলে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) আইনজীবী অ্যাডভোকেট মাহমুদুল হক সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।

তিনি বললেন, “আদালতে জামিন আবেদনের শুনানি কালে দুদকের পক্ষ থেকে জামিনের বিরোধিতা করা হয়।”

“আগামী ৬ এপ্রিল পরবর্তী শুনানির তারিখ ধার্য করা হয়”।! তবে আদালত সূত্রে জানা গেছে, “এসআই মোঃ নওয়াব আলী দুর্নীতির মাধ্যমে অর্জিত টাকার মালিক বানিয়েছেন স্ত্রী গোলজার বেগমকে”। মাছ চাষ থেকে ১ কোটি ৩৮ লাখ ৬৮ হাজার টাকা আয় করেছেন বলে দাবি করেছেন।”

কিন্তু বাস্তবে মাছ চাষের অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি।” দুদক ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, “গোলজার বেগম চট্টগ্রাম নগরীর খুলশী থানার লালখান বাজার চানমারি এলাকার বাসিন্দা।” তিনি মহানগর মহিলা দলের সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়িত্বে রয়েছেন। “তার স্বামী নওয়াব আলী ঢাকায় সিআইডির এসআই পদে কর্মরত রয়েছেন।

এই ছাড়া দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) ২০১৯ সালের ৯ অক্টোবর এসআই নওয়াব আলী, তার স্ত্রী গোলজার বেগম, কর অঞ্চল-১ চট্টগ্রামের সাবেক অতিরিক্ত সহকারী কর কমিশনার বাহার উদ্দিন চৌধুরী ও কর পরিদর্শক দীপংকর ঘোষকে আসামি করে আদালতে মামলা দায়ের করেন। ২৫ ফেব্রুয়ারি ৪ আসামির বিরুদ্ধে আদালত গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন।

দুদকের তদন্তে উঠে এসেছে, নওয়াব আলীর গ্রামের বাড়ি গোপালগঞ্জ সদরের কেকানিয়া এলাকায় ২০১৩ সালে ৬ দশমিক ৯০ শতাংশ জমির ওপর নির্মিত একটি দোতলা বাড়ি, স্ত্রী গোলজার বেগমের নামে সীতাকুন্ডের ছলিমপুরে ৩৫৪ শতক জমি, নগরের লালখান বাজার এলাকায় পার্কিংসহ ১ হাজার ১০০ বর্গফুটের ফ্ল্যাট ও ৪ শতক জমি এবং একটি মাইক্রোবাস আছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *