রাত ১:৪০ । ৮ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ । ২১শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ । ৯ই রমজান, ১৪৪২ হিজরি


জরুরী নোটিশ/বিজ্ঞপ্তিঃ
* সর্বশেষ খবর সবার আগে পেতে ভিজিট করুন www.nilakashbarta.com – নীলাকাশ বার্তা ডট কম। ধন্যবাদ। জরুরী ভিত্তিতে বাংলাদেশের জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোটাল www.nilakashbarta.com – নীলাকাশ বার্তা ডট কম পত্রিকায় জেলা/উপজেলা ভিত্তিক প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে, আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন। অফিস : সুন্দরবন টাওয়ার (২য় তলা), নূরনগর বাজার, নূরনগর-৯৪৫১, শ্যামনগর, সাতক্ষীরা, ঢাকা, বাংলাদেশ। মোবাঃ +৮৮০১৮৮৫-১৭৫৬৮০, +৮৮০১৯৫৬-৬৯৫৯৮১, ই-মেইল : nilakashbarta@gmail.com, nuruzzamannews@gmail.com, ফেসবুক : www.facebook.com/nilakashbarta * To get the latest news, visit www.nilakashbarta.com first. Thanks. District/Upazila based representatives will be appointed in the popular online news portal www.nilakashbarta.com of Bangladesh on an urgent basis. Those interested should contact. Office: Sundarbans Tower (2nd Floor), Nurnagar Bazar, Nurnagar-9451, Shyamnagar, Satkhira, Dhaka, Bangladesh. Mob: +8801885-175680, + 801958-695971, E-mail: nilakashbarta@gmail.com, nuruzzamannews@gmail.com, Facebook: www.facebook.com/nilakashbarta
শিরোনাম

“শ্যামনগরে ঐতিহাসিক সেই বন্দুক দেখতে হেলিকপ্টারে উড়ে আসলেন বিজিবি মহাপরিচালক”

Spread the love

ডেস্ক রিপোর্টঃ”এশিয়ার বিখ্যাত বাঘ শিকারী সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার দীপ ইউনিয়ন গাবুরার সোরা গ্রামের পচাব্দী গাজীর ঐতিহাসিক রয়েল বেঙ্গল টাইগার শিকারের আলোচিত সেই বন্দুকটিকে স্বচক্ষে দেখতে সুন্দরবন অঞ্চল শ্যামনগর উপজেলায় হেলিকপ্টারে উড়ে আসলেন বিজিবি মহাপরিচালক মেজর জেনারেল সাফিনুল ইসলাম।”

“৩ মার্চ বুধবার সকাল দশ টার দিকে হেলিকপ্টার যোগে শ্যামনগরে আসেন তিনি। “হেলিকপ্টার থেকে নেমে সরাসরি শ্যামনগর থানায় চলে যান এ সময় তাকে অভিনন্দন জানান সাতক্ষীরার পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান পিপিএম ও নীলডুমুর ১৭ বিজিবির অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল ইয়াসিন চৌধুরী।”

“এর পরে তিনি শ্যামনগর থানায় রক্ষিত ঐতিহাসিক সেই বন্দুকটি দেখেন।” বিখ্যাত বাঘ শিকারী পচাব্দী গাজী এই বন্দুক দিয়ে ৪২ টি রয়েল বেঙ্গল টাইগার হত্যা করেছিলেন”।

“মানুষ খেকো এইসব বাঘগুলোকে হত্যা করার জন্য পচাব্দী গাজী বিভিন্ন সময়ে পুরস্কৃত হয়েছেন। “তৎকালীন ব্রিটিশ সরকার পচাব্দী গাজীকে বেঙ্গল টাইগার নামে অভিহিত করেছিলেন। পচাব্দী গাজীর মৃত্যুর পর তার ব্যবহৃত বন্দুকটি উত্তরাধিকার সূত্রে তার পুত্র আবুল হোসেন পাওয়ার পরে বন্দুকটি রিনিউ না করার কারণে শ্যামনগর থানার অস্ত্রাগারে দীর্ঘ কুড়ি বছর ধরে পড়ে আছে। “ঐতিহাসিক এই বন্দুকটি এক নজর চোখে দেখার জন্য বিজিবি মহাপরিচালকের এই সফর”। এ সময় তিনি বিজিবির অফিসার ও সৈনিকদের উদ্দেশ্যে বলেন, “সীমান্ত রক্ষায় তাদেরকে আরো তৎপর হতে হবে। মাদক, নারী পাচার ও চোরাচালানের ব্যাপারে কোনো প্রকার ছাড় দেয়া হবে না।”

“BGB director general flew in a helicopter to Shyamnagar”

Desk Report:

BGB Director General Major Safinul Islam flew in a helicopter to Shyamnagar Upazila in the Sundarbans region to witness the famous Royal Bengal Tiger hunting at Pachabdi Gazi in Sora village of Deep Union Gabura in Shyamnagar Upazila of Satkhira.

Satkhira Superintendent of Police Mostafizur Rahman PPM and Lieutenant Colonel Yasin Chowdhury, commander of Nildumur 18 BGB, congratulated him when he got off the helicopter and went straight to Shyamnagar police station.

“After that he saw that historic gun kept in Shyamnagar police station.” The famous tiger hunter Pachabdi Ghazi killed 42 Royal Bengal Tigers with this gun “.

“Pachabdi Ghazi has been rewarded at various times for killing these man-eating tigers.” The then British government called Pachabdi Ghazi the Bengal Tiger. The gun he used after the death of Pachabdi Ghazi has been lying in the arsenal of Shyamnagar police station for twenty years as he did not renew the gun after he inherited it from his son Abul Hossain. “This visit of the BGB director general to see this historic gun at a glance”. Addressing the BGB officers and soldiers, he said, “They need to be more proactive in protecting the border. No concessions will be made on drug, women trafficking and smuggling.”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *