সকাল ৮:০৬ । ২২শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ । ৭ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ । ২৩শে রজব, ১৪৪২ হিজরি


জরুরী নোটিশ/বিজ্ঞপ্তিঃ
* সর্বশেষ খবর সবার আগে পেতে ভিজিট করুন নীলাকাশ বার্তা ডট কম। ধন্যবাদ। জরুরী ভিত্তিতে বাংলাদেশের জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোটাল নীলাকাশ বার্তা ডট কম পত্রিকায় জেলা/উপজেলা ভিত্তিক প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে, আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন। অফিস : সুন্দরবন টাওয়ার (২য় তলা), নূরনগর বাজার, নূরনগর-৯৪৫১, শ্যামনগর, সাতক্ষীরা, ঢাকা, বাংলাদেশ। মোবাঃ +৮৮০১৮৮৫-১৭৫৬৮০, +৮৮০১৯৫৬-৬৯৫৯৮১, ই-মেইল : nilakashbarta@gmail.com, nuruzzamannews@gmail.com, ফেসবুক : https://www.facebook.com/nilakashbarta
শিরোনাম
“ট্রেনের নিচে প্রেমিক যুগলের ঝাঁপ, জীবন গেল প্রেমিকের” “চলতি সপ্তাহের ভাইরাল সংবাদ “ফেঁসে যাচ্ছেন নাসিরের স্ত্রী তামিমা!” “বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণ বাংলাদেশের স্বাধীনতার মূল প্রেরণা”- কবির নেওয়াজ দেশের বিভিন্ন এলাকায় বজ্র বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে “সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের নির্বাচন সম্পন্ন বাপ্পী সভাপতি, সুজন সম্পাদক” “৪ যুবকের সঙ্গে কিশোরীর ‘প্রেম’, পরে লটারিতে মীমাংসা!” “শ্বশুরবাড়ি যাওয়ার আগে কাঁদতে কাঁদতে নববধূর মৃত্যু” গাড়িবোমা হামলা চালিয়ে ২০ জনকে হত্যা” “মিয়ানমারে চরম বিপাকে সেনাবাহিনী, রাস্তায় রাস্তায় ঝুলছে নারীদের লুঙ্গি!” “জোটের রাজনীতি- ঘরের আগুনে পুড়ছে ১৪ দল”

“ইউপি চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে নারীকে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ”

 

নীলাকাশ বার্তাঃ “কুমিল্লা জেলার মেঘনা উপজেলায় স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে নাজমা বেগম (৬৫) নামে এক নারীকে নৃশংস ভাবে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে।” এ সময় আরও ৫ জনকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করা হয়।”

“শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে উপজেলার ভাওরখোলা ইউনিয়নের ভাওরখোলা গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটেছে বলে জানা গেছে। ”
“নিহত নাজমা বেগম ওই গ্রামের আবদুস সালামের স্ত্রী”। এ ঘটনায় আহতরা হলেন- আবদুস সালাম, তার ভাই সিরাজুল ইসলাম, ফারুক, মকবুলসহ ৫ জন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা সূত্রে জানা যায়, “গত ইউপি নির্বাচনে প্রার্থী হওয়া নিয়ে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ফারুক আব্বাসীর সঙ্গে বিরোধ চলছিল সিরাজুল ইসলামের। হামলাকারী এবং হামলার শিকার দু’পক্ষই আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত।”

“শুক্রবার সিরাজুল ইসলাম তার চাচাতো ভাই দিলবরের মেয়ের বিয়ে উপলক্ষে ঢাকা থেকে বাড়িতে আসেন। সামনে ইউপি নির্বাচন হওয়ায় সিরাজের বাড়িতে আসার বিষয়টি মেনে নিতে পারেননি আব্বাসী”। এজন্য শুক্রবার সন্ধ্যায় আব্বাসীর নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী রামদা, চাইনিজ কুড়ালসহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সিরাজুল ইসলামদের ঘরে হামলা চালায়।”

“এ সময় নাজমা বেগমসহ ঘরে থাকা সবাইকে কুপিয়ে আহত করে তারা”। পরে আহতদের উপজেলা হাসপাতালে নিলে চিকিৎসকরা নাজমা বেগমকে মৃত ঘোষণা করেন”। আহতদের মধ্যে সালামসহ দুজনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল (ঢামেক) কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।”

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে মেঘনা থানার ওসি মোঃ আবদুল মজিদ বলেন, “চেয়ারম্যান ফারুক আব্বাসীর নেতৃত্বে এ হামলার ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত হয়েছি।” এ ঘটনায় জড়িতরা এলাকা থেকে পালিয়ে গেছে। তাদের আটক করতে অভিযান অব্যাহত রেখেছি।”

আরও পড়ুন

 

“কাদের মির্জা ও বাদল সমর্থদের সংঘর্ষে এলাকা রণক্ষেত্র গুলিবিদ্ধ ৩, অর্ধশত আহত

নীলাকাশ বার্তাঃ “নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জার অনুসারীদের সাথে সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদলের কর্মী- সমর্থকদের সংঘর্ষের ঘটনায় এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়েছে।”

“দুই গ্রুপের সংঘর্ষে তিন জন গুলিবিদ্ধ হয়েছে, এছাড়াও দুইপক্ষের অন্তত অর্ধশতাধিক ব্যক্তি আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে সাত জনের অবস্থা আশংকা জনক বলে জানা গেছে।

শুক্রবার বিকেল ৫টার দিকে উপজেলার চরফকিরা ইউনিয়নের চাপরাশীরহাট বাজারের তরকারি বাজারের সামনে এই ঘটনা ঘটে। উপজেলায় ব্যাপক উত্তেজনা বিরাজ করছে।

গুলিবিদ্ধরা হলেন, উপজেলার বড়রাজাপুর গ্রামের আবদুল ওয়াহিদের ছেলে সাইদুর রহমান (২৬), চরকাঁকড়া ইউনিয়নের সিরাজুল ইসলামের ছেলে নুরুল অমিত (২০), বসুরহাট পৌরসভার আবুল কালামের ছেলে রায়হান (২০)।”

অপরদিকের চরফকিরা ইউনিয়নের কাঞ্চন (৬০), মুছাপুর ইউনিয়নের আবুল খায়েরের ছেলে মাসুদ (২৫), চরকাঁকড়া ইউনিয়নের আবদুস সাত্তারের ছেলে কামরুল হাসান (৩০), চরফকিরা ইউনিযনের আবদুল মান্নানের ছেলে ফরহাদ (৪০), চরফকিরা ইউনিয়নের বোরহান উদ্দিন মুজাক্কির (২৮) বসুরহাট পৌরসভা এলাকার আদনান (২৪), মারুফ (২৫) সহ কমপক্ষে অর্ধশতাধিক লোকজন আহত হয়েছে।

কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মোঃ সেলিম এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, “গুলিবিদ্ধ তিনজনসহ গুরুতর আহত পাঁচজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য নোয়াখালী সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।”

“এছাড়া গুরুত্বর আহত আরো দুজন স্থানীয় প্রাইভেট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন বলে জানা যায়।”

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, “কাদের মির্জা বৃহস্পতিবার কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের কমিটি ভেঙে দিলে আ’লীগের দুই গ্রুপের মধ্যে বিরোধ স্পষ্ট হয়ে ওঠে।” সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে নিয়ে মিথ্যাচারের প্রতিবাদে সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদল চরফকিরা ইউনিয়নের চাপরাশীরহাট বাজারে পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী শুক্রবার বিকেলে সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিলের ডাক দেন”। বাদলের অনুসারীরা চাপরাশীরহাট বাজারে মিছিল করতে গেলে কাদের মির্জার সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। “পরে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে কাদের মির্জা উপস্থিত হলে দুই গ্রুপের মধ্যে ব্যাপক উত্তেজনা দেখা দেয় এবং তারা রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে”। এসময় পুলিশ কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়ে সংঘর্ষে জড়ানো নেতাকর্মীদের ছত্রভঙ্গ করার চেষ্টা করে।” এক পর্যায়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।”

কোম্পানীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মীর জাহিদুল হক রনি সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, “পুলিশ ঘটনাস্থলে অবস্থান করছে। বর্তমানে পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তবে এ ঘটনায় কাউকে আটক করা যায়নি। পরে এ ঘটনায় আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।”

 

আরও পড়ুন

এখানে হাত দিলে হাত পুড়ে যাবে। তাই বিনয়ের সঙ্গে আপনার কাছে অনুরোধ, যা কিছু করুন এসব নিয়ে নাড়াচাড়া করবেন না। আপনারা খুব বেশি নিরাপদে নেই। কতটা দুশ্চিন্তা এবং অশান্তিতে আছেন তা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে জিজ্ঞেস করবেন। তাই এ সংঘাতের রাস্তা ভুলে যান। জিয়াউর রহমান বীরউত্তম এবং অন্য বীরউত্তম তাঁরা যত দিন বাংলাদেশ থাকবে তত দিনের জন্য বীরউত্তম। যাঁরা বীরবিক্রম, বীরপ্রতীক তাঁরাও তত দিনের জন্য। কারও ইচ্ছায় একবার গেজেট করলাম আরেকবার কেটে দিলাম এসব হওয়ার নয়। যদি দয়া করে আপনি না শোনেন নিশ্চয় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী প্রিয় বোনকে বলব।

 

তাঁর এখন যে রাজনৈতিক গভীরতা তাতে নিশ্চয়ই তিনি অন্য কথা শুনুন আর না শুনুন আমার এ কথা অবশ্য অবশ্যই শুনবেন। তাই মেহেরবানি করে জিয়াউর রহমান বীরউত্তমের খেতাব নিয়ে, তিনি মুক্তিযোদ্ধা কিনা এসব নিয়ে পানি ঘোলা করবেন না- এটা কোনো হুঁশিয়ারি নয়, একেবারে বিনীত অনুরোধ।

লেখক : রাজনীতিক।

বাংলাদেশ প্রতিদিন থেকে নেওয়া,,,,

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *