রাত ১০:১৪ । ১৯শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ । ৪ঠা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ । ২০শে রজব, ১৪৪২ হিজরি


জরুরী নোটিশ/বিজ্ঞপ্তিঃ
* সর্বশেষ খবর সবার আগে পেতে ভিজিট করুন নীলাকাশ বার্তা ডট কম। ধন্যবাদ। জরুরী ভিত্তিতে বাংলাদেশের জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোটাল নীলাকাশ বার্তা ডট কম পত্রিকায় জেলা/উপজেলা ভিত্তিক প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে, আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন। অফিস : সুন্দরবন টাওয়ার (২য় তলা), নূরনগর বাজার, নূরনগর-৯৪৫১, শ্যামনগর, সাতক্ষীরা, ঢাকা, বাংলাদেশ। মোবাঃ +৮৮০১৮৮৫-১৭৫৬৮০, +৮৮০১৯৫৬-৬৯৫৯৮১, ই-মেইল : nilakashbarta@gmail.com, nuruzzamannews@gmail.com, ফেসবুক : https://www.facebook.com/nilakashbarta
শিরোনাম
শ্যামনগরে প্রাইভেটকার নদীতে নিহতের সংখ্যা বেড়ে দুই” “ভাঙারির দোকান থেকে কেনা বাটির মূল্য ৫ কোটি টাকা!” শ্যামনগরে প্রাইভেটকার উল্টে একজন নিহত, আহত চার “কামড়ে দেবরের মাংস তুলে নিলেন ভাবি!” শ্যামনগরে মৎস্য কর্মকর্তার অপসারণের দাবিতে মৎস্য চাষীদের মানববন্ধন “যে কারণে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি শ্যামনগরে আসতে চাচ্ছেন সামরিক সরকার আদেশ অমান্য করে মিয়ানমারের তিন পুলিশ আশ্রয় নিল ভারতে “ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী তিস্তার পানি আর সীমান্ত হত্যা নিয়ে যে ব্যাখ্যা করলেন” বিদ্যুতের খুঁটির জন্যে রক্ষা পেলো ৬০ বাস যাত্রীর প্রাণ! ভোরে গ্রেফতার, রাতে ‘র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

“কাদের মির্জা ও বাদল সমর্থদের সংঘর্ষে এলাকা রণক্ষেত্র গুলিবিদ্ধ ৩, অর্ধশত আহত

নীলাকাশ বার্তাঃ “নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জার অনুসারীদের সাথে সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদলের কর্মী- সমর্থকদের সংঘর্ষের ঘটনায় এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়েছে।”

“দুই গ্রুপের সংঘর্ষে তিন জন গুলিবিদ্ধ হয়েছে, এছাড়াও দুইপক্ষের অন্তত অর্ধশতাধিক ব্যক্তি আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে সাত জনের অবস্থা আশংকা জনক বলে জানা গেছে।

শুক্রবার বিকেল ৫টার দিকে উপজেলার চরফকিরা ইউনিয়নের চাপরাশীরহাট বাজারের তরকারি বাজারের সামনে এই ঘটনা ঘটে। উপজেলায় ব্যাপক উত্তেজনা বিরাজ করছে।

গুলিবিদ্ধরা হলেন, উপজেলার বড়রাজাপুর গ্রামের আবদুল ওয়াহিদের ছেলে সাইদুর রহমান (২৬), চরকাঁকড়া ইউনিয়নের সিরাজুল ইসলামের ছেলে নুরুল অমিত (২০), বসুরহাট পৌরসভার আবুল কালামের ছেলে রায়হান (২০)।”

অপরদিকের চরফকিরা ইউনিয়নের কাঞ্চন (৬০), মুছাপুর ইউনিয়নের আবুল খায়েরের ছেলে মাসুদ (২৫), চরকাঁকড়া ইউনিয়নের আবদুস সাত্তারের ছেলে কামরুল হাসান (৩০), চরফকিরা ইউনিযনের আবদুল মান্নানের ছেলে ফরহাদ (৪০), চরফকিরা ইউনিয়নের বোরহান উদ্দিন মুজাক্কির (২৮) বসুরহাট পৌরসভা এলাকার আদনান (২৪), মারুফ (২৫) সহ কমপক্ষে অর্ধশতাধিক লোকজন আহত হয়েছে।

কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মোঃ সেলিম এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, “গুলিবিদ্ধ তিনজনসহ গুরুতর আহত পাঁচজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য নোয়াখালী সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।”

“এছাড়া গুরুত্বর আহত আরো দুজন স্থানীয় প্রাইভেট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন বলে জানা যায়।”

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, “কাদের মির্জা বৃহস্পতিবার কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের কমিটি ভেঙে দিলে আ’লীগের দুই গ্রুপের মধ্যে বিরোধ স্পষ্ট হয়ে ওঠে।” সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে নিয়ে মিথ্যাচারের প্রতিবাদে সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদল চরফকিরা ইউনিয়নের চাপরাশীরহাট বাজারে পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী শুক্রবার বিকেলে সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিলের ডাক দেন”। বাদলের অনুসারীরা চাপরাশীরহাট বাজারে মিছিল করতে গেলে কাদের মির্জার সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। “পরে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে কাদের মির্জা উপস্থিত হলে দুই গ্রুপের মধ্যে ব্যাপক উত্তেজনা দেখা দেয় এবং তারা রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে”। এসময় পুলিশ কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়ে সংঘর্ষে জড়ানো নেতাকর্মীদের ছত্রভঙ্গ করার চেষ্টা করে।” এক পর্যায়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।”

কোম্পানীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মীর জাহিদুল হক রনি সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, “পুলিশ ঘটনাস্থলে অবস্থান করছে। বর্তমানে পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তবে এ ঘটনায় কাউকে আটক করা যায়নি। পরে এ ঘটনায় আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।”

 

আরও পড়ুন

এখানে হাত দিলে হাত পুড়ে যাবে। তাই বিনয়ের সঙ্গে আপনার কাছে অনুরোধ, যা কিছু করুন এসব নিয়ে নাড়াচাড়া করবেন না। আপনারা খুব বেশি নিরাপদে নেই। কতটা দুশ্চিন্তা এবং অশান্তিতে আছেন তা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে জিজ্ঞেস করবেন। তাই এ সংঘাতের রাস্তা ভুলে যান। জিয়াউর রহমান বীরউত্তম এবং অন্য বীরউত্তম তাঁরা যত দিন বাংলাদেশ থাকবে তত দিনের জন্য বীরউত্তম। যাঁরা বীরবিক্রম, বীরপ্রতীক তাঁরাও তত দিনের জন্য। কারও ইচ্ছায় একবার গেজেট করলাম আরেকবার কেটে দিলাম এসব হওয়ার নয়। যদি দয়া করে আপনি না শোনেন নিশ্চয় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী প্রিয় বোনকে বলব।

 

তাঁর এখন যে রাজনৈতিক গভীরতা তাতে নিশ্চয়ই তিনি অন্য কথা শুনুন আর না শুনুন আমার এ কথা অবশ্য অবশ্যই শুনবেন। তাই মেহেরবানি করে জিয়াউর রহমান বীরউত্তমের খেতাব নিয়ে, তিনি মুক্তিযোদ্ধা কিনা এসব নিয়ে পানি ঘোলা করবেন না- এটা কোনো হুঁশিয়ারি নয়, একেবারে বিনীত অনুরোধ।

লেখক : রাজনীতিক।

বাংলাদেশ প্রতিদিন থেকে নেওয়া,,,,

 

“সাতক্ষীরা জেলায় প্রথম ধাপে যেসব ইউনিয়নে নির্বাচন হচ্ছে”

নীলাকাশ বার্তাঃ দেশের ২০ জেলার ৩২৩ ইউনিয়ন পরিষদে ইউপি প্রথম ধাপের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১১ এপ্রিল। এর মধ্যে ৪১ ইউপিতে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে ইভিএম ভোটগ্রহণ করা হবে।”

“৭৬ তম কমিশন বৈঠক শেষে বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব মোহাম্মদ হুমায়ুর কবীর খোন্দকার।”

তিনি বলেন, “২০ জেলার ৬৩টি উপজেলার ৩২৩টি ইউপির মধ্যে ৪১টিতে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে “ইভিএম” ভোটগ্রহণ করা হবে। অন্যগুলোতে ব্যালট পেপারে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।”

“এক্ষেত্রে তফসিল ঘোষণা করা হবে মার্চের প্রথম সপ্তাহে। কেননা, “২ মার্চ চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশ করা হবে। ভোটার তালিকা চূড়ান্ত করার পর তফসিল ঘোষণা করা হবে।”

হুমায়ুন কবীর বলেন, “ষষ্ঠ ধাপের ৯টি পৌরসভার ভোটগ্রহণও অনুষ্ঠিত হবে। পৌরসভাগুলো হলো- ঝালকাঠি, লাঙ্গলকোট, ভাঙ্গা, চকরিয়া, সোনাগজী, কবিরহাট, মহেশখালী, সেতাবগঞ্জ ও দেবীগঞ্জ। এসব পৌরসভাতেও ইভিএমে ভোটগ্রহণ হবে।”

“এবারও গতবারের মতো চেয়ারম্যান পদে দলীয় প্রতীকে ইউপির ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।”

“প্রথম ধাপে সাতক্ষীরার যেসব ইউনিয়নে নির্বাচন
কলারোয়া উপজেলার কয়লা, হেলাতলা ও যুগিখালী ইউনিয়ন।
তালা উপজেলার ধানদিয়া, তেঁতুলিয়া, তালা, ইসলামকাটি, মাগুরা, খেসরা , জালালপুর ও খলিলনগর ইউনিয়ন।”

 

আরও পড়ুন

” সাতক্ষীরায় ওয়াজ করতে গিয়ে গণপিটুনি খেলেন নকল বক্তা!”
নীলাকাশ বার্তাঃ “মাহফিলে ওয়াজ করছেন এক বক্তা। বয়ানের মাঝে শ্রোতাদের মনে সন্দেহ জাগে তার পরিচয় নিয়ে।’ পরে গণপিটুনির শিকার হয়ে এলাকা ছাড়তে হয় তাকে।”

“শুক্রবার (১২ ফেব্রুয়ারি) রাত ১১টার দিকে সাতক্ষীরা সদর উপজেলার এল্লারচর ইউনিয়নের বালিথা এলাকায় এ কাণ্ড ঘটে।” সোশ্যাল মিডিয়ায় এর একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়লে দেশজুড়ে ব্যাপক আলোচনা শুরু হয়।”

জানা যায়, “যে বক্তা ওয়াজে আসার কথা ছিল তিনি ওই এলাকায় পরিচিত।” কিন্তু আরেক জন মঞ্চে উঠে বয়ান করতে থাকলে শ্রোতাদের মনে সন্দেহের দানা বাঁধে।” একপর্যায়ে মঞ্চে থাকা একজন স্থানীয় গণমান্য ব্যক্তি সরাসরি তাকে জিজ্ঞাসা করেন। “পরে ধরা পড়ে যান ওই নকল বক্তা।”

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ শামছুর রহমান রোববার সন্ধ্যায় ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।”

তিনি জানান, “সালমা বেগম নামে এক নারী ওই মাহফিলের আয়োজন করেছিলেন।” সেখানে ঢাকা থেকে মাওলানা আবুল কালাম আজাদ নামে এক বক্তা আসার কথা ছিল।” কিন্তু এ নাম ধারণ করে অন্য একজন এসে প্রধান অতিথির ওয়াজ শুরু করেন।”

“বয়ানের মাঝে শ্রোতাদের মনে সন্দেহ জাগলে তাকে থামিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।” “এক পর্যায়ে তার মুখের রুমাল টান দিলে দেখা যায় তার দাড়ি নেই!”

“বিষয়টি বুঝতে পেরে স্টেজেই কথিত বক্তাকে মারপিট শুরু করেন জনতা। পরে পুলিশের সহায়তায় পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে এলাকা ছাড়া করা হয় তাকে।”

জানা গেছে, “নকল ওই বক্তা এফডিসির একজন ভিডিও এডিটর ও স্ক্রিপ্ট রাইটার। তবে তার নাম- পরিচয় সম্পর্কে সঠিক তথ্য পাওয়া যায়নি। ওই মাহফিলে সিনেমা জগতের খলনায়ক আমির সিরাজী ও নায়ক মেহেদী উপস্থিত ছিলেন।”

“ঘটনার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়লে ব্যাপক সমালোচনা সৃষ্টি হয়।” ক্ষোভ জানিয়েছেন আলেমরাও।” ওয়াজ মাহফিলে কাউকে দাওয়াত দেয়ার আগে তার সম্পর্কে বিস্তারিত খোঁজ নেয়ার কথা বলছেন তারা।”

আরও পড়ুন

“১৪ কেন্দ্রের মধ্যে ধানের শীষ ১২টিতে, ২টিতে নৌকা এগিয়ে”

নীলাকাশ বার্তাঃ “কঠোর নিরাপত্তা ও উৎসব মূখর পরিবেশে সাতক্ষীরা পৌরসভা নির্বাচনের ভোট গ্রহণ শেষে ফলাফল আসতে শুরু করেছে।”
রোববার সকাল ৮টা থেকে পৌর এলাকার ৩৭টি কেন্দ্রে ইভিএমের মাধ্যমে বিকাল ৪টা পর্যন্ত এই ভোট গ্রহণ করা হয়।
ইতোমধ্যে একে একে আসতে শুরু করেছে ভোট কেন্দ্রের ফলাফল।”

“সাতক্ষীরা জেলা নির্বাচন অফিসের সম্মেলন কক্ষে রিটার্নিং অফিসার নাজমুল কবীর আগত ফলাফল গ্রহণ ও ঘোষণা করছেন।”

“শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ১৪টি কেন্দ্রের ফলাফলে ধানের শীষের তাজকিন আহমেদ চিশতি ১২টিতে ও নৌকার নাসেরুল হক ২টিতে এগিয়ে রয়েছেন।”

উল্লেখ, সাতক্ষীরা পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে ৫ জন, সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ১২ জন ও সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৫২ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

“এদের মধ্যে মেয়র প্রার্থীরা হলেন, নৌকা প্রতীকের নাসেরুল হক, ধানের শীষ প্রতীকের তাজকিন আহমেদ চিশতি, নারিকেল গাছ প্রতীকের নাসিম ফারুক খান মিঠু, হাতপাখা প্রতীকের এসএম মুস্তাফিজুর রউফ ও জগ প্রতীকের নুরুল হুদা।”

তবে শেষ পর্যন্ত কার ভাগ্যসুপ্রসন্ন হয় তা আর একটু পরেই জানা যাবে।

আরও পড়ুন

 

“দুই পক্ষের সংঘর্ষে কাউন্সিলর প্রার্থীর ভাই নিহত”

নীলাকাশ বার্তাঃ “চট্টগ্রাম জেলার পটিয়া উপজেলার কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন।”

“আজ রবিবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে পটিয়ার ৮ নম্বর ওয়ার্ডের গোবিন্দারখীল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।”

“নিহত ব্যক্তির নাম আবদুল্লাহ। তিনি কাউন্সিলর প্রার্থী মান্নানের ভাই বলে জানা গেছে।”

পটিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল করিম মজুমদার বলেছেন, ‘পটিয়া পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডের গোবিন্দারখীল এলাকায় নির্বাচন সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে গুলি বিনিময়ের ঘটনা ঘটে। এতে একজন নিহত হয়েছেন।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *