সকাল ৮:২৭ । ২২শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ । ৭ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ । ২৩শে রজব, ১৪৪২ হিজরি


জরুরী নোটিশ/বিজ্ঞপ্তিঃ
* সর্বশেষ খবর সবার আগে পেতে ভিজিট করুন নীলাকাশ বার্তা ডট কম। ধন্যবাদ। জরুরী ভিত্তিতে বাংলাদেশের জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোটাল নীলাকাশ বার্তা ডট কম পত্রিকায় জেলা/উপজেলা ভিত্তিক প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে, আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন। অফিস : সুন্দরবন টাওয়ার (২য় তলা), নূরনগর বাজার, নূরনগর-৯৪৫১, শ্যামনগর, সাতক্ষীরা, ঢাকা, বাংলাদেশ। মোবাঃ +৮৮০১৮৮৫-১৭৫৬৮০, +৮৮০১৯৫৬-৬৯৫৯৮১, ই-মেইল : nilakashbarta@gmail.com, nuruzzamannews@gmail.com, ফেসবুক : https://www.facebook.com/nilakashbarta
শিরোনাম
“ট্রেনের নিচে প্রেমিক যুগলের ঝাঁপ, জীবন গেল প্রেমিকের” “চলতি সপ্তাহের ভাইরাল সংবাদ “ফেঁসে যাচ্ছেন নাসিরের স্ত্রী তামিমা!” “বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণ বাংলাদেশের স্বাধীনতার মূল প্রেরণা”- কবির নেওয়াজ দেশের বিভিন্ন এলাকায় বজ্র বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে “সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের নির্বাচন সম্পন্ন বাপ্পী সভাপতি, সুজন সম্পাদক” “৪ যুবকের সঙ্গে কিশোরীর ‘প্রেম’, পরে লটারিতে মীমাংসা!” “শ্বশুরবাড়ি যাওয়ার আগে কাঁদতে কাঁদতে নববধূর মৃত্যু” গাড়িবোমা হামলা চালিয়ে ২০ জনকে হত্যা” “মিয়ানমারে চরম বিপাকে সেনাবাহিনী, রাস্তায় রাস্তায় ঝুলছে নারীদের লুঙ্গি!” “জোটের রাজনীতি- ঘরের আগুনে পুড়ছে ১৪ দল”

“সাতক্ষীরায় বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে শ্রমিকের মর্মান্তিক মৃত্যু”

 

আলমগীর হায়দার, স্টাফ রিপোর্টারঃ সাতক্ষীরায় বিদ্যুতের খুঁটিতে কাজ করার সময় বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে হাবিবুর রহমান ভুট্টো (৩৮) নামের এক শ্রমিকের মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। সোমবার সকাল পৌনে ৯টার দিকে সাতক্ষীরা শহরের কাটিয়া আমতলা মোড় সংলগ্ন স্টাফ- কোয়াটারের সামনে এ ঘটনাটি ঘটেছে বলে জানা গেছে । নিহত ওই শ্রমিক গাইবান্ধা জেলার সাদুল্লাহপুর উপজেলার ৩নং দমোদরপুর দুলার বটতলা গ্রামের কুদ্দুস আলীর ছেলে বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীদের সূত্রে জানা যায়, “নিহত হাবিবুর রহমান ভুট্টো সাতক্ষীরায় বিদ্যুতের পোল বসানোর ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের শ্রমিকের কাজ করত।” “আজ সোমবার সকালে কাটিয়া ফিডার কাজ করার জন্য সাতক্ষীরা বিদ্যুৎ অফিসকে লাইন বন্ধ করতে বলেন।” তারা কাটিয়া ফিডের লাইন বন্ধ করলেও পাশাপাশি দুটো ফিডার থাকায় হাবিবুর ভুল করে টেক্সটাইলস মিলস ফিডারে উঠে পড়েন। কাজ করার উদ্দেশ্যে ৩৩ হাজার কে.বি ভোল্টেজ এর লাইনে হাত লাগানোর সাথে সাথে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে তার মৃত্যু হয়।”

সাতক্ষীরা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ আসাদুজ্জামান ওই শ্রমিকের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

 

আরও পড়ুন

“সাতক্ষীরা সড়কে হালকা বৃষ্টিতে কাঁদা, কার্পেটিং রাস্তা ভাটা মালিকদের দখলে”

নীলাকাশ বার্তাঃ “সাতক্ষীরা কালিগঞ্জ মহাসড়কে আলিপুর কুলিয়া, পারুলিয়া, সখিপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন জায়গায় হালকা বর্ষার কারনে মহাসড়কের কার্পেটিং সড়কে কাদায় পিচ্ছিল হয়ে গেছে।

“প্রধান সড়কের আশেপাশে ইটের ভাটা গুলোতে মাটি বহনের কারনে রাস্তায় মাটি পড়ায় সাতক্ষীরা- কালিগঞ্জ গামী মেইন সড়কের পাঁকা রাস্তাটি এখন কাদা রাস্তায় পরিণত হয়েছে।” “এই রাস্তা দিয়ে প্রতিদিন শ্যামনগর উপজেলার ও কালিগঞ্জ এলাকার হাজার হাজার মানুষেরা যানবাহন, মটরসাইকেলে চলাচল করে।

হালকা বৃষ্টিতে পাকা রাস্তার উপর কাদার সৃষ্টি হওয়ায় চরম দুর্ভোগে পড়েছে পথচারীরা। “রাস্তা দিয়ে ভ্যান -সাইকেল তো দূরের কথা পায়ে হেঁটে চলাও দায় হয়ে পড়েছে।”

” ইটভাটার অবৈধ ট্রাক্টর- ডাম্পার, ট্রলি পাকা রাস্তা দিয়ে নিয়মিত মাটি উঠানোয় এই কাদার সৃষ্টি হয়েছে বলে জানান স্থানীয়রা। “এ নিয়ে জনগণের মাঝে চরম অসন্তোষ দেখা দিলেও প্রশাসনের নিরবতায় জনগনের মাঝে নানা প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। “রৌদ্র হলে ধুলা বালি বর্ষা হলেই কাদা।”

উভয় সংকটে সাধারণ মানুষ, মনে হচ্ছে এই বিষয় যেনো দেখার কেউ নেই। কেউ কেউ বলেছেন ভাটা মালিকদের দখলে সব রাস্তা।

“বছরের পর বছর ধরে কতিপয় মাটি ব্যবসায়ীরা কার্পেটিং রাস্তাগুলোতে মাটি ফেলে কাঁচায় রাস্তায় পরিণত করে রাখলেও তাদের কেহ স্পর্শ করার মতো সাহস নেই বা তাদের প্রতি আইন প্রয়োগ হয় না।” শোনা যাচ্ছে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের কতিপয় লোকজন এদের কাছ থেকে মোটা অংকের মাসহারা পেয়ে থাকেন।

গতকাল রবিবার সকালে সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, “হালকা বর্ষায় কাদার কারণে কুলিয়ার বিভিন্ন জায়গায় যানবহন চলাচলে অনুপোযোগী হয়ে পড়েছে। “প্রায় ৩০টির মত মোটর সাইকেল কাঁদায় পড়ে গেছে।”

স্থানীয়রা অভিযোগ করে বলেন,- ইটভাটার ট্রাক্টরে ধারণ ক্ষমতার চেয়ে অতিরিক্ত বহন করা মাটি সড়কে পড়ে। বেশ কিছুদিন ধরে ধুলায় টিকে থাকা দায় হয়ে পড়েছিল। এখন বৃষ্টি হওয়াতে পাকা রাস্তাটি কাদাময় হয়ে পড়েছে। চলাচলসহ নিত্য প্রয়োজনীয় কাজে বেড়েছে দুর্ভোগ। এ রাস্তায় চলাচল করা মটরসাইকেল আরহি মেহেদী হাসান বলেন, “ইটভাটার কাজে নিয়োজিত মাটিবাহী যানবাহন থেকে রাস্তায় পড়ে যাওয়া মাটি রোদের সময় রাস্তায় শুকনোয় ধুলা আর বর্ষায় কাঁদা হয়ে থাকে দেখে বুঝার উপায় থাকে না এটা কার্পেটিং রাস্তা। এতে বছর জুড়েই এই সড়কে চলাচল করতে পোহাতে হয় দুর্ভোগ। গত বছর এমন ঘটনা ঘটেছে তবুও প্রশাসন কোন ব্যবস্থা গ্রহন করেনি কেন?

মহাসড়কটির বেহাল দশার কারনে দক্ষিনাঞ্চল শ্যামনগর, কালীগঞ্জ ও দেবহাটা উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য আশঙ্কাজনক অবস্থায় রোগীদের জেলার সদর হাসপাতাল, মেডিকেল হাসপাতাল সহ অন্যান্য হাসপাতালে নিতেও অনেকটা সময়ক্ষেপন ও বেগ পেতে হয় এ্যম্বুলেন্স ও রোগীর স্বজনদের। তবে জনগুরুত্বপূর্ণ এই সড়কটিতে যদি এখনই কোন ব্যবস্থা গ্রহন করা না যায় তাহলে কিছুদিনের মধ্যেই চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়বে। বিশেষ করে আগামী বর্ষা মৌসুম তো আছেই। এজন্য এখনই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া জরুরী হয়ে পড়েছে। না হলে বড় ধরনের দূর্ঘটনা ঘটতে পারে। উক্ত বিষয়ে দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে দাবী জানান এলাকাবাসী।

 

আরও পড়ুন

শ্যামনগরে করোনা টিকার শুভ উদ্বোধন করলেন জগলুল হায়দার এমপি”

শ্যামনগর সাতক্ষীরা প্রতিনিধিঃ সারাদেশের ন্যায় সাতক্ষীরা’রা শ্যামনগর উপজেলায়ও করোনা ভাইরাসের টিকা দেওয়ার কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন করা হয়েছে। ৭ফেব্রুয়ারি রবিবার সকাল দশ টায় শ্যামনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বঙ্গবন্ধু কর্নারে উক্ত টিকা দেওয়ার কার্যক্রম উদ্বোধন করা হয়। উক্ত টিকা কার্যক্রম উদ্বোধন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্বে করেন শ্যামনগর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তা ডাঃ অজয় কুমার সাহা। এসময় প্রধান অতিথি হিসেবে কোভিড-১৯ মহামারী করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিনের শুভ উদ্বোধন করেন সাতক্ষীরা-৪ আসনের সংসদ সদস্য এস এম জগলুল হায়দার। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শ্যামনগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এস.এম আতাউল হক দোলন, শ্যামনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা
আ ন ম আবুজর গিফারী, শ্যামনগর উপজেলা প্রেসক্লাব এর সাধারণ সম্পাদক জাহিদ সুমন, উপজেলা পঃ পঃ কর্মকর্তা মোঃ শাকির হোসেন, ঈশ্বরীপুর ইউপি চেয়ারম্যান এ্যাডঃ শোকর আলী, কাশিমাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রউফ। এছাড়াও গণমাধ্যমকর্মীবৃন্দ, হাসপাতালের সকল কর্মকর্তা কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। আলোচনা সভা শেষে কোভিড-১৯ এর ভ্যাকসিন ডাঃ খাঁন হাবিবুর রহমান, প্রাক্তন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তাকে প্রথম প্রদানের মাধ্যমে এ কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *